1. admin@bdsomoy.com : Bd Somoy : Bd Somoy
সোমবার, ৩০ মার্চ ২০২০, ০৪:০৪ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
গরু দিয়ে ধান খাওয়ানোর প্রতিবাদ করায় থানায় অভিযোগ দায়ের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে সমবেদনা : শেখ হাসিনার রাজধানীর সড়কগুলোতে গত ক’দিনের তুলনায় বেড়ে গেছে পরিবহন সুনামগঞ্জে করোনা ভাইরাসে মানুষজনকে নিরাপদে রাখতে মাস্ক ও সাবান বিতরণ করেন গীতা পরিষদ সুনামগঞ্জ জেলার উপদেষ্টা রোকন উদ্দিন রাজুর অর্থয়ানে প্রায় ২০০টি সাবান,২০০টি মাস্ক ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ সুনামগঞ্জ করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যদের হাতে দুপুরের নাস্তা তুলে দেন : চপল সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসন ও সদর উপজেলা পরিষদের উদ্যোগে ঘরবন্দি মানুষের মাঝে ত্রানসামগ্রী বিরতণ নড়াইলের কালিয়া পৌর মেয়রের উদ্যেগে জীবানুনাশক স্প্রে কার্যক্রম কোয়ারেন্টাইনের শর্ত ভঙ্গ করায় ইতালি ফেরত যুবককে জরিমানা সাতক্ষীরায় রংপুর পীরগঞ্জের ইউ.এন.ও টিএমএ মোমিন বললেন রংপুরে “লকডাউন” বলে গুজব সৃষ্টি হয়েছে

শিশু শাহরিয়ারকে ৮ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে তুহিন হত্যা মামলায় : আদালত

  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ১০ মার্চ, ২০২০
  • ৯২ বার পড়া হয়েছে

এম রেজা টুনু : ( সুনামগঞ্জ ) ০৯ মার্চ, ২০২০, ০৩:৩০ পিএম

সুনামগঞ্জে নৃশংসভাবে পাঁচ বছরের শিশু তুহিন মিয়াকে হত্যার ঘটনায় করা মামলা আজ মঙ্গলবার (০২ মার্চ) তুহিনের চাচাতো ভাই শিশু শাহরিয়ারকে ৮ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। এর আগে এই মামলায় আদালতে ২৬ জন সাক্ষী সাক্ষ্য দিয়েছেন।

গত বছরের ১৪ অক্টোবর সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার কেজাউরা গ্রামে এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। ওই দিন সকালে বাড়ির পাশের একটি গাছের ডালে ঝুলন্ত অবস্থায় তুহিনের লাশ পাওয়া যায়। তুহিনের গলা, দুই কান ও যৌনাঙ্গ কাটা ছিল।

পেটে বিদ্ধ ছিল দুটি ছুরি। এ ঘটনায় তুহিনের মা মনিরা বেগম বাদী হয়ে পরের দিন অজ্ঞাত আসামিদের বিরুদ্ধে দিরাই থানায় মামলা করেন। এই মালায় পুলিশ তুহিনের বাবা আবদুল বাছির (৪০), চাচা নাসির উদ্দিন (৩৫), আবদুল মছব্বির (৪৫) ও জমসেদ আলী (৬০) এবং ১৭ বছর বয়সী চাচাতো ভাইকে গ্রেপ্তার করে।

গত বছরের ১৪ অক্টোবর সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার কেজাউরা গ্রামে এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। ওই দিন সকালে বাড়ির পাশের একটি গাছের ডালে ঝুলন্ত অবস্থায় তুহিনের লাশ পাওয়া যায়। তুহিনের গলা, দুই কান ও যৌনাঙ্গ কাটা ছিল।

পেটে বিদ্ধ ছিল দুটি ছুরি। এ ঘটনায় তুহিনের মা মনিরা বেগম বাদী হয়ে পরের দিন অজ্ঞাত আসামিদের বিরুদ্ধে দিরাই থানায় মামলা করেন। এই মালায় পুলিশ তুহিনের বাবা আবদুল বাছির (৪০), চাচা নাসির উদ্দিন (৩৫), আবদুল মছব্বির (৪৫) ও জমসেদ আলী (৬০) এবং ১৭ বছর বয়সী চাচাতো ভাইকে গ্রেপ্তার করে।

পুলিশ তুহিন হত্যা মামলায় গত ৩০ ডিসেম্বর এই পাঁচজনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেয়। এরপর আদালতে অভিযোগ গঠন হয় ৭ জানুয়ারি। তুহিনের ১৭ বছর বয়সী চাচাতো ভাইয়ের বিচার হচ্ছে শিশু আদালতে।

অন্যদের বিচার হচ্ছে জেলা দায়রা জজ আদালতে। এই মামলায় গত ১৩ জানুয়ারি প্রথম তুহিনের মা মনিরা বেগমসহ পাঁচজন সাক্ষী সাক্ষ্য দেন। এরপর পর্যায়ক্রমে মামলার বাকি সাক্ষীদের সাক্ষ্যগ্রহণ করেন আদালত। আদালতে তুহিনের মা মনিরা বেগম বলেছেন, ১৩ অক্টোবর রাতে তুহিন তার বাবা আবদুল বাছিরের সঙ্গে একই খাটে ঘুমিয়ে ছিল।

তিনি ছিলেন পাশের কক্ষে। গভীর রাতে তুহিনের চাচাতো বোন তাদের ঘুম থেকে ডেকে তুলে জানায়, ঘরের দরজা খোলা। তখন তিনি দেখেন তুহিনের বাবার পাশে তুহিন নেই। পরে সকালে জানতে পারেন, তুহিনকে কে বা কারা হত্যা করে লাশ গাছে ঝুলিয়ে রেখেছে।

কে বা কারা তুহিনকে হত্যার করেছে তিনি জানেন না। আসামি পক্ষের আইনজীবী বজলুল মজিদ চৌধুরী বলেন, তুহিন হত্যা মামলায় আদালত শিশু শাহরিয়ারকে ৮ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৭ । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।